Please Go "How to Work" page If you are New in this site...


কর্মহীন ও দুস্থ শ্রমিকের মাঝে খাদ্য সামগ্রী বিতরণ | narailexpress2

কর্মহীন ও দুস্থ শ্রমিকের মাঝে খাদ্য সামগ্রী বিতরণ | narailexpress2

ভাটিয়ারী ইমামনগর রহমান মঞ্জিলে ইপসার উদ্যেগে ২৫জন কর্মহীন ও দুস্থ শ্রমিক পরিবারের মাঝে খাদ্য সামগ্রী বিতরণ করা হয়েছে। এর মধ্যে ছিল চাল, ডাল, আলু, চিনি, লবন ও ঔষুধ সামগ্রীসহ ৩২ কেজি বিভিন্ন খাদ্য সামগ্রী রয়েছে। রোববার বিকেলে উক্ত সামগ্রী বিতরণকালে উপস্থিত ছিলেন ইপসার কো-অর্ডিনেটর মোহাম্মদ আলী শাহিন, সীতাকুণ্ড প্রেসক্লাবের সাবেক সভাপতি মো.সেকান্দর হোসাইন, চট্টগ্রাম উত্তর জেলা কৃষকলীগের কৃষিপণ্য বিষয়ক সম্পাদক আলহাজ্ব মোহাম্মদ হোসেন, গাউছিয়া কমিটি বাংলাদেশ সীতাকুণ্ড উপজেলা শাখার অর্থ সম্পাদক ইঞ্জিনিয়ার আলহাজ্ব রফিক উদ্দিন আহমেদ। ইপসার কো-অর্ডিনেটর মোহাম্মদ আলী শাহিন জানান, সীতাকুণ্ড থেকে গড়ে উঠা সামাজিক সংগঠন ইপসা দুর্যোগ মূহুর্তে সবসময় মানুষের পাশে থাকে। এর ধারাবাহিকতায় সাম্প্রতিক করোনা প্রাদুর্ভাবে কর্মহীন শ্রমিক ও দুস্থ ৫ হাজার পরিবারের খাদ্য উপহার বিতরণের সিদ্ধান্ত নেয়। তিনি আরও জানান, প্রতিটি এলাকায় দুঃস্থ, প্রতিবন্ধী, ক্ষুদ্র নৃগোষ্ঠী এবং জেলে সম্প্রদায়ের লোকদেরকে এলাকার চেয়ারম্যান দ্বারা স্বীকৃত কর্মহীন ব্যাক্তিদের ক্রমান্বয়ে এ খাদ্য সামগ্রী প্রদান করা হবে। গরীবদের মাঝে ইপসার খাদ্য সামগ্রী বিতরণে ইপসার প্রধান নির্বাহী আরিফুর রহমান এর প্রতি কৃতজ্ঞতা জানিয়ে সীতাকুণ্ড প্রেসক্লাবের সাবেক সভাপতি সেকান্দর হোসাইন বলেন, দেশের সুনামধন্য এনজিও সংস্থা ইপসা সারা দেশে বছরব্যাপী গরীব, দুঃখী মানুষের সাহায্যে কাজ করে থাকে। ইপসার মাধ্যমে হাজার হাজার মানুষ উপকারভোগী। তারা সামনের দিকে আরো বেশী পরিমাণ দেশের কল্যাণে, গরীব-অসহায়দের কল্যাণে অবদান রাখবে বলে তিনি আশাব্যক্ত করেন।



Share This News:


Top News

স্থানিয় জনপ্রতিনিধিরাই আশ্রয় প্রশ্রয় দাতা; নিরুপায় পুলিশ প্রশাসন

অরক্ষিত মিরসরাইয়ের উপকূলিয় অঞ্চল, মাথাচড়া দিয়ে উঠেছে পাতিনেতার দল মিরসরাই উপজেলার সাহেরখালী ইউনিয়নের উপকূলীয় এলাকায় মাথা চড়া দিয়ে উঠেছে উঠতি বয়সের পাতি নেতার দল। এসব পাতি নেতারা চুরি, চিন্তাই, ইয়াবা ব্যাবসায় থেকে শুরুকরে ডাকাতির সাথেও জড়িয়ে পড়ছে। এদের অত্যাচারে অতিষ্ট হয়ে পড়েছে উপকূলিয় এলায় বসবাসকারী অতিসাধারণ জনজীবন। এরা কখনো গোয়াল থেকে পাল সহ গরু-মহিষ চুরি করছে আবার কখনো খোলামাঠে ঘুরে বেড়ানো ছাগল হাওয়া করে দিচ্ছে। পুকুরের মাছ, খোয়াড়ের হাস-মুরগি, জমির ফসল কোন কিছুই বাদ যাচ্ছে না তাদের চুরির তালিকা থেকে। জেলেদের জাল, নৌকার ইঞ্জিন, দোকানিদের মালামাল লুট করে নিচ্ছে রাতের আধারে অথবা প্রকাশ্য দিবালোকে। স্থানিয় জনপ্রতিনিধিরা এসব পাতি নেতাদের আশ্রয় পশ্রয় দেয়ার কারনে এদের বিরুদ্ধে মুখ খোলার সাহসও পাচ্ছেন না ভুক্তভোগি ক্ষতিগ্রস্থ সাধারণ মানুষ গুল

Read More....


করোনায় সচেতনতা তৈরিতে পায়ে হেঁটে প্রচারনায় মেয়র

বিভিন্ন দোকানপাটে আড্ডা ও অযথা জনসমাগম রোধে জনসচেতনতার জন্য পৌরসভার বিভিন্ন হাট-বাজার সহ গুরুত্বপূর্ণ স্থান পরিদর্শন করে পায়ে হেঁটে মাইকিং করেছেন ফটিকছড়ি পৌরসভার মেয়র আলহাজ্ব ইসমাইল হোসেন। বৃহস্পতিবার সকাল থেকে রাত পর্যন্ত তিনি পৌরসভার বিবিরহাট, ছইল্ল্যার দোকান, আমান বাজার, চৌমহনি বাজার পরিদর্শন করে ব্যবসায়ী ও যুব সমাজকে প্রশাসনের নির্দেশনা মেনে চলতে অনুরোধ জানান। অন্যথায় প্রশাসন যো কোন ব্যবস্থা নিলে তার করার কিছুই থাকবেনা বলে সাধারণ মানুষকে তিনি বলেন। এ ব্যাপারে মেয়র ইসমাইল বলেন, করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ প্রতিরোধে পৌরবাসীকে জনসমাগম এড়িয়ে চলে সামাজিক দুরত্ব বজায় রাখার অনুরুধ করছি।

Read More....


বোয়ালখালীতে ফেসবুকে নারীর নামে আপত্তিকর ছবি, যুবক গ্রেফতার | narailexpress2

বোয়ালখালীতে বিবাহিত এক নারীর নামে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে অাপত্তিকর ছবি ও ভিডিও তৈরি করে ছড়িয়ে দেওয়ার অভিযোগে সাব্বির (২৩) নামের এক যুবককে গ্রেফতার করেছে থানা পুলিশ। শনিবার (১৮ জুলাই) সাব্বিরকে গ্রেফতার করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন বোয়ালখালী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো.আবদুল করিম। তিনি বলেন, উপজেলা সদরের এক বিবাহিত নারীর নামে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে অাপত্তিকর অশ্লীল ছবি ও ভিডিও ছড়িয়ে দেওয়ায় গত ১৫ জুলাই আইসিটি আইনে মামলা দায়ের করলে তা থানায় রেকর্ড করা হয়। এ বিষয়ে তদন্ত চলছে। ওই মামলায় গ্রেফতারকৃত সাব্বিরকে আদালতে সোর্পদ করা হয়েছে। মামলার এজাহারে জানা গেছে, উপজেলা সদরের ৬নং ওয়ার্ডের আবদুল হালিম বাবুর্চির ছেলে সাব্বির তার কলেজের এক সহপাঠীর নামে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুক আইডি খুলে গত ২৯ মার্চ থেকে বিভিন্ন সময় গত ১৩ জুলাই প

Read More....


Khoiyachora wellspring is in the mountains | narailexpress2.com

Khoiyachora Waterfall is a sloping cascade which is arranged on the slopes of Mirsharai , Chittagong, Bangladesh . Among numerous different cascades in Mirsarai upazila, for example, Komoldoho Waterfall , Napittachora Waterfall , Napittachora Waterfall , Sahasradhara Waterfall , Jharjhari Waterfall and so forth., Khoiyachora cascade and its passageway is one of the biggest in this uneven belt. Dhaka-Chittagong thruway on the north side of the Baratakia market at the Khoiyachora Union of Mirsharai Upazila . The area of the water is 4.2 kilometers east of it.

Because of the area of the wellspring is in the mountains, it is unimaginable to expect to reach at the head of the wellspring legitimately by utilizing any vehicle. It is conceivable to arrive at the town close to the wellspring utilizing the Dhaka-Chittagong roadway or by walking from the side or utilizing neighborhood vehicles (for example CNG). In any case, there is no course of action for the remainder of the street to arrive at the standard of the wellspring in the lower regions of the slope, it is conceivable to reach there by walking as it were. The Khoiyachora cascade has a sum of seven significant cascades (course) and many confined advances.

Since the area of the wellspring is in Khoiyachora association of Mirsarai Upazila, the cascade has been named Khoiyachora Waterfall It is accepted that the Khoiyachora Waterfalls, which is streaming right around 50 years back.

It required some investment to find its area for massless mountain territories and brambles. Again numerous individuals feel that this wellspring was made because of uneven redirections just about 50 years back, before that there was no waterfall.The place is so delightful then other spot.so I wish everybody go there and appreciate the magnificence of nature.

This waterfall is

Read More....


Shylet another big district in Bangladesh | narailexpress2

Shylet is the another big district in Bangladesh. Its located in north-east Bangladesh, is the divisional capital and one of the four districts in the Sylhet Division. Sylhet District is divided into thirteen Upazilas. it was established in 1782, and until 1878 it was part of Bengal province. In that year, Sylhet was included in the newly created Assam Province, and it remained as part of Assam up to 1947 (except during the brief break-up of Bengal province in 1905–11). Sylhet district was divided into five subdivisions and the current Sylhet District was known as the North Sylhet subdivision. In 1947, Sylhet became a part of East Pakistan as a result of a referendum (except 3½ thanas of Karimganj subdivision) as part of Chittagong Division.[4] It was subdivided into four districts in 1983-84 with the current Sylhet District being known as North Sylhet. It became a part of Sylhet Division after its formation in 1995. Its a city in eastern Bangladesh, on the Surma River. It’s known for its Sufi shrines, like the ornate tomb and mosque of 14th-century saint Hazrat Shah Jalal, now a major pilgrimage site near Dargah Gate. The tiny Museum of Rajas contains belongings of the local folk poet Hasan Raja. A 3-domed gateway stands at the 17th-century Shahi Eidgah, a huge open-air hilltop mosque built by Emperor Aurangzeb. There has a lot of Mosque like Chattogram. Hajrat Shah Jalal(R:) and Hajrat Shah Poran(R:) are the famous mosque . Shylet is also famous for Tea Garden. Jaflong the another famous for tourist place.Its called the Hill station. Its also located Shylet district. Here live lots of Kashi Tribe. Its mainly a tea garden and hill.here a river also .really its very peace to look at.Here born many famous people. Lutfur Rahman (politician), the first elected mayor of the London Borough of Tower Hamlets council. Mukhlesur Rahman Chowdhury,former minister and adviser to the president of Bangladesh. Humayun Rashid Choudhury, Awami League leader and former speaker o

Read More....


Loan is one sort of abuse in the permitting of credits | narailexpress2.com

Savage advancing is one sort of abuse in the permitting of credits. It usually incorporates permitting a development to set the borrower in a spot that one can secure benefit over the individual being referred to; subprime contract crediting and payday-crediting are two models, where the moneylender isnt endorsed or controlled, the bank could be seen as a development shark. Usury is a substitute kind of abuse, where the advance expert charges exorbitant interest. In different intervals of time and social orders, the commendable credit cost has changed, from no premium at all to boundless advance expenses. Visa associations in specific countries have been accused by purchaser relationship for advancing at usurious financing expenses and getting cash out of senseless "extra charges. Abuses can in like manner occur as the customer mauling the moneylender by not repaying the development or with an intend to swindle the bank. US charges Most of the key standards managing how advances are managed for charge purposes in the United States are orchestrated by both Congress (the Internal Revenue Code) and the Treasury Department (Treasury Regulations – another course of action of concludes that translate the Internal Revenue Code). 1. A development isnt gross compensation to the borrower. Since the borrower has the obligation to repay the credit, the borrower has no advancement to wealth. 2. The moneylender may not deduct (from own gross compensation) the proportion of the credit. The thinking here is that one asset (the cash) has been changed over into a substitute asset (an assurance of repayment). Remittances are not ordinarily open when an expense serves to make some other asset. 3. The whole paid to satisfy the credit responsibility isnt deductible (from own gross compensation) by the borrower. 4. Repayment of the development isnt gross compensation to the credit trained professional. Basically, the assurance of repayment is changed ove

Read More....


হঠাৎ চট্টগ্রামে গণপরিবহন সংকট, চরম দূর্ভোগ নগরবাসী । nogodbd.com

কোনো ঘোষণা ছাড়াই হঠাৎ করে সোমবার সকাল ছয়টা থেকে সীতাকুণ্ড- চট্টগ্রাম রোডে গণ পরিবহন চলাচল বন্ধ করে দেওয়ায় দূর্ভোগে পড়েছে হাজার হাজার যাত্রী সাধারণ। সকাল থেকে ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের বিভিন্ন স্থানে দেখা গেলো দূর্ভোগের চিত্র।
সীতাকুণ্ড থেকে অলংকার (৮ নং) বাস ও কুমিরা থেকে নিউ মার্কেট (৭ নং) বাসসহ বিভিন্ন মিনিবাস,হুলার সকাল ৬ টা থেকে গন্তব্য থেকে ছেড়ে যায়নি। এ কারণে মহাসড়কের বিভিন্ন স্থানে রাস্তা গাড়ির জন্য শত শত মানুষকে অপেক্ষা করতে দেখা যায়। অফিসগামী, স্কুল- কলেজের শিক্ষার্থীদের এবং বিভিন্নস্থানে যাতায়তকারী যাত্রীরা চরম দূর্ভোগে পড়েন কোন আগাম ঘোষণা ছাড়া গাড়ি চলাচল বন্ধ থাকায়।
এ ব্যাপারে জানতে চাইলে সীতাকুণ্ড-অলংকার মিনিবাস মালিক সমিতির যুগ্ন সাধারণ সম্পাদক মোঃ খোরশেদ আলম বলেন, গতকাল চট্টগ্রাম মহানগরীর ১০ নম্বর রুটে ফিটনেসবিহীন বাস চালান

Read More....


কর্মহীন ও দুস্থ শ্রমিকের মাঝে খাদ্য সামগ্রী বিতরণ | narailexpress2

ভাটিয়ারী ইমামনগর রহমান মঞ্জিলে ইপসার উদ্যেগে ২৫জন কর্মহীন ও দুস্থ শ্রমিক পরিবারের মাঝে খাদ্য সামগ্রী বিতরণ করা হয়েছে। এর মধ্যে ছিল চাল, ডাল, আলু, চিনি, লবন ও ঔষুধ সামগ্রীসহ ৩২ কেজি বিভিন্ন খাদ্য সামগ্রী রয়েছে। রোববার বিকেলে উক্ত সামগ্রী বিতরণকালে উপস্থিত ছিলেন ইপসার কো-অর্ডিনেটর মোহাম্মদ আলী শাহিন, সীতাকুণ্ড প্রেসক্লাবের সাবেক সভাপতি মো.সেকান্দর হোসাইন, চট্টগ্রাম উত্তর জেলা কৃষকলীগের কৃষিপণ্য বিষয়ক সম্পাদক আলহাজ্ব মোহাম্মদ হোসেন, গাউছিয়া কমিটি বাংলাদেশ সীতাকুণ্ড উপজেলা শাখার অর্থ সম্পাদক ইঞ্জিনিয়ার আলহাজ্ব রফিক উদ্দিন আহমেদ। ইপসার কো-অর্ডিনেটর মোহাম্মদ আলী শাহিন জানান, সীতাকুণ্ড থেকে গড়ে উঠা সামাজিক সংগঠন ইপসা দুর্যোগ মূহুর্তে সবসময় মানুষের পাশে থাকে। এর ধারাবাহিকতায় সাম্প্রতিক করোনা প্রাদুর্ভাবে কর্মহীন শ্রমিক ও দুস্থ ৫ হাজার পরিবারে

Read More....



Developed by: Sakil Suva